1. engg.robel@gmail.com : Alokito Bangladesh :
মঙ্গলবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২০, ০৫:১৭ অপরাহ্ন
সর্বশেষ :
এস.এস.সি’৯৭ ব‍্যাচ কক্সবাজার জেলার নিবন্ধন চলছে। জীবন সায়াহ্নে আলহাজ্ব নুরুল হুদা চৌধুরী; পরিবারের দোয়া কামনা দেশের ১৬ কোটি মানুষকে অনলাইনে আনতে সরকার কাজ করছে : জয়! আখেরি মোনাজাতে অংশ নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী দ্বিতীয় দফার চুক্তিও মানতে নারাজ এসএটিভির এমডি সালাহউদ্দিন; কঠোর কর্মসূচির হুঁশিয়ারি ডিইউজে নেতাদের কক্সবাজারে ছিনতাইকারীর গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার ! রোহিঙ্গাদের পাশাপাশি স্থানীয়দের অধিকার নিশ্চিত করতে হবে : স্পিকার টেকনাফে পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে নারী মাদক কারবারি নিহত টেকনাফে ছাত্রলীগের ৭২তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত সারাদেশে ৫৯৫ জন আইজিপি পুরুস্কারের মধ্যে টেকনাফ থানায় পাচ্ছেন এএসআই সঞ্জিব !

মোবাইলের তেজস্ক্রিয়া মানব দেহের জন্য ক্ষতিকর

  • আপডেট টাইম শুক্রবার, ৮ মার্চ, ২০১৯
  • ১৭৫ নিউজটি পড়া হয়েছে

বর্তমান সময়ে মোবাইলফোন একটি অতি প্রয়োজনীয় ডিভাইস হিসেবে বলা যেতে পারে। অনেকে এটিকে জীবনের গুরুত্বপূর্ণ একটি অংশ হিসেবেও ধরে নিচ্ছে। প্রতিনিয়ত এই ডিভাইসটির প্রতি আমাদের আসক্তি বেড়েই চলেছে। আবার আমরা অনেকেই জানি যে, মোবাইল ফোন অতিরিক্ত ব্যবহারে আমাদের বিভিন্ন রকম ক্ষতি হচ্ছে। তবে আমরা অনেকেই জানি না যে, মোবাইল ব্যবহারের ফলে আমাদের কী ধরনের ক্ষতি হচ্ছে। আবার যারা জানেন তারাও মোবাইলফোন ব্যবহার থেকে বিরত থাকতে পারছেন না প্রয়োজনের তাগিদে। আমাদের প্রয়োজনীয় এই ডিভাইসটি আমাদের কী কী ক্ষতি করছে চলুন জেনে নিই—

যেভাবে আক্রান্ত হই

আমাদের এই প্রয়োজনীয় ডিভাইসটি দিয়ে আমারা সাধারণত বার্তা আদান প্রদান ও দূর আলাপনীর কাজে ব্যবহার করে থাকি। ফোনটি যখন এই কার্যটি করে থাকে তখন এটি থেকে রেডিয়েশন বা তেজস্ক্রিয়া নির্গত হয়। এই তেজস্ক্রিয়ার প্রভাবে মানব দেহের বিশাল ক্ষতি হয়ে থাকে। আমরা যখন ফোন দিয়ে কথা বলি তখন সেটিকে কানের সঙ্গে বা মাথার কাছে রেখেই কথা বলি। কথা বলার সময় মোবাইল থেকে নির্গত তেজস্ক্রিয়া মস্তিষ্কের কোষগুলোর সংস্পর্শে চলে আসে। ফলে মস্তিষ্ক তথা দেহের অন্যান্য অংশেও প্রভাব পড়ে ও নানা ধরনের স্বাস্থ্য ঝুঁকির সৃষ্টি হয় এতে।

তেজস্ক্রিয়া যেভাবে কাজ করে

মোবাইলফোনের নিজস্ব কার্যক্রম সম্পন্ন করতে বা তার কার্য সম্পাদনের জন্য মোবাইলফোন থেকে কিছু চৌম্বকীয় তেজস্ক্রিয়া বা ইলেক্ট্রোম্যাগনেটিক রেডিয়েশন নির্গত হয়। প্রতিটি মোবাইলফোনই রেডিও ফ্রিকোয়েন্সি বা বেতার তরঙ্গের মাধ্যমে তথ্য স্থানান্তর করে থাকে। এই তরঙ্গটি মূলত এক ধরনের বৈদ্যুতিক চৌম্বকীয় তেজস্ক্রিয়া।

আপনার স্মার্টফোনটি কী পরিমাণ তেজস্ক্রিয়া ছড়াচ্ছে তা জানেন?

নতুন স্মার্টফোন কেনার সময় আমরা প্রায় সকলেই তার ক্যামেরা, ব্যাটারি ব্যাকআপ, ডিসপ্লের সাইজ, প্রসেসর ও স্টোরেজ স্পেসিফিকেশন দেখে নিতে ভুল করি না। এ বিষয়গুলোর সঙ্গে আরো একটা জরুরি বিষয় আমরা দেখে নিতে প্রায় সকলেই ভুল করি। আবার অনেকে বিষয়টি সম্পর্কে জানেনই না। স্মার্টফোনের ওয়েভ ভ্যালুও তার একটি গুরুত্বপূর্ণ ফিচার যা স্মার্টফোন কেনার আগেই দেখে নেওয়া ভালো।

যেভাবে ওয়েভ ভ্যালু জানবেন

প্রত্যেক সংস্থা তার ফোনের ইউজার ম্যানুয়ালে ওয়েভ ভ্যালু উল্লেখ করে দেয়। স্মার্টফোনের বাক্সের মধ্যেই থাকে এই ম্যানুয়াল। তবে স্মার্টফোনের ইউজার ম্যানুয়াল নিশ্চয়ই কেউ সঙ্গে করে নিয়ে ঘোরেন না বা দেখে থাকলেও মনে রাখেন না। ইউজার ম্যানুয়াল ছাড়াও নিজের ফোন থেকেই দেখে নিতে পারবেন সেটির ক্ষতিকর বিকিরণের পরিমাণ। কী ভাবে? আসুন

জেনে নেওয়া যাক—

প্রথমে স্মার্টফোনটি আনলক করুন

এবার ফোনের ডায়ালার ওপেন করুন

এবার ডায়াল করুন *#০৭# আর তারপর কল বাটন প্রেস করুন

এবার আপনার স্মার্টফোনের ডিসপ্লেতে প্রদর্শিত হবে ওয়েভ ভ্যালুর পরিমাণ

নিউজটি শেয়ার করুন..

Comments are closed.

এ জাতীয় আরো খবর..