1. engg.robel@gmail.com : Alokito Bangladesh :
শনিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২০, ১১:৩৮ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ :
সেন্টমার্টিন কে পৌরসভা করতে সংসদে দাবী এমপি শাহীন বদি’র এস.এস.সি’৯৭ ব‍্যাচ কক্সবাজার জেলার নিবন্ধন চলছে। জীবন সায়াহ্নে আলহাজ্ব নুরুল হুদা চৌধুরী; পরিবারের দোয়া কামনা দেশের ১৬ কোটি মানুষকে অনলাইনে আনতে সরকার কাজ করছে : জয়! আখেরি মোনাজাতে অংশ নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী দ্বিতীয় দফার চুক্তিও মানতে নারাজ এসএটিভির এমডি সালাহউদ্দিন; কঠোর কর্মসূচির হুঁশিয়ারি ডিইউজে নেতাদের কক্সবাজারে ছিনতাইকারীর গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার ! রোহিঙ্গাদের পাশাপাশি স্থানীয়দের অধিকার নিশ্চিত করতে হবে : স্পিকার টেকনাফে পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে নারী মাদক কারবারি নিহত টেকনাফে ছাত্রলীগের ৭২তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত

পাহাড়তলী উদয়ন যুব কল্যান পরিষদের উদ্যোগে অসহায় পরিবারের মাঝে গরুর মাংস বিতরণ

  • আপডেট টাইম বৃহস্পতিবার, ১৫ আগস্ট, ২০১৯
  • ১৪৩ নিউজটি পড়া হয়েছে

ডেস্ক নিউজ-  

কক্সবাজার জেলার পৌরসভাস্থ পাহাড়তলীর ইউসুলুর ঘোনার ৭ নং ওয়ার্ড সংলগ্ন একঝাঁক তরুণদের সমন্বয়ে কয়েক মাস আগে গঠিত হয়েছে পাহাড়তলী উদয়ন যুব কল্যান পরিষদ নামের সংগঠনটি। সেবা, মানবতা, উন্নয়ন, কল্যান সহ নানামূখী উদ্যােগ নিয়ে স্বপ্ন পূরণের লক্ষ্যে কে সামনে রেখে আজ পবিত্র ইদুল আযহা দিনে সমিতির সদস্যদের নিজ অর্থায়নে এলাকার গরীব অসহায় দুস্হ প্রায় ৫০ টি পরিবারের হাতে কোরবানির ৫ কেজি করে গরুর মাংস তুলে দিয়েছেন সমিতির সভাপতি তরুণ সমাজ সেবক আবদুল্লাহ আল মামুন ও সাধারণ সম্পাদক তরুণ শিল্পপতি উসমান গনি, সাংগঠনিক সম্পাদক নাছির উদ্দীন, অর্থ সম্পাদক আবুল কালাম মানিক দপ্তর সম্পাদক ইয়াসিন আরাফাত সহ সমিতির সকল সদস্যবৃন্দ।
মাংস পাওয়া গরীব অসহায় পরিবারগুলোর কাছ থেকে তাদের অনুভূতি কি জানতে চাওয়া হলে তারা জানান জন্ম থেকে এই এলাকায় বসবাস করে আসতেছি। আমাদের সাথে অনেক ধনী পরিবার ও বাস করে। রয়েছে নানা ধরনের আরো বিভিন্ন সামাজিক সংগঠন সহ তিনটিরও বেশি সমাজ। কোরবানের দিন আসলে অর্থের অভাবে কোরবানি দিতে পারিনা তাই এই সমাজ গুলোতে আমাদের অন্তর্ভুক্ত করা হয় না। আশেপাশে বসবাসরত ধনীদের দিকে চেয়ে থাকি। কেউ মাংস দেয় আবার কেউ তাড়িয়ে দেয়।কিন্তু পাহাড়তলীতে এমন মহতী উদ্যোগ এটাই প্রথম ও নজীর বিহীন।আজ আমরা অসহায় পরিবারগুলো খুব খুশি। পরিবার পরিজন নিয়ে খুশি মনে মাংস খেতে পারব। তাই এই সমিতির সকল সদস্যদের প্রতি মহান আল্লাহর দরবারে দোয়া কামনা করি। এই সমিতিটি যেন হাজার বছর বেঁচে থাকে।সমিতির সাধারণ সম্পাদক তরুণ শিল্পপতি উসমান গনির কাছ থেকে জানতে চাইলে তিনি প্রতিবেদক কে বলেন, দিন বদলের সাথে সাথে দেশে মানুষ যেমন বেড়েছে তেমনি চাহিদাও।তাই তরুণদের সমন্বয়ে এই সমিতিটি প্রতিষ্ঠা করেছি।বিশেষ করে কোরবানের দিন আসলে অর্থের অভাবে গরিব পরিবারের লোকজন মাংস খেতে চাই।একার পক্ষে এতো বড় উদ্যেগ নেয়া যায় না।তাই সবার সহযোগিতা নিয়ে গরীবের হজ্জ নামে পরিচিত এই পবিত্র দিনে তাদের হাতে কোরবানির মাংস তুলে দিতে পেরে আমরা সমিতির সকল সদস্যবৃন্দ খুবই আনন্দিত ।ইচ্ছে আছে যদি মহান আল্লাহ বাচিঁয়ে রাখেন আগামীতে আরো বড় পরিসরে ব্যাপক আকারে বিভিন্ন সেবা সহ সমিতির সকল সদস্যদের সমন্বয়ে অসহায় মানুষের পাশে থাকার প্রতুশ্রতি ব্যর্থ করেন। এতে তিনি সমস্ত ভেদাভেদ ও হিংসা অহংকার পরিহার করে মানবতার সেবায় সবাই কে নিয়োজিত থাকার জন্য সকলের দোয়া কামনা করেন।
এতে আরো উপস্থিত ছিলেন সমিতির কার্যকরি কমিটির সিনিয়র সহ সভাপতি সাজ্জাদ হোসেন, সহ সভাপতি হোসেন আহমেদ, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক ওসমান সরওয়ার টিপু সহ প্রমুখ নেতৃবৃন্দ।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Comments are closed.

এ জাতীয় আরো খবর..