1. engg.robel@gmail.com : Alokito Bangladesh :
মঙ্গলবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২০, ০৫:১৪ অপরাহ্ন
সর্বশেষ :
এস.এস.সি’৯৭ ব‍্যাচ কক্সবাজার জেলার নিবন্ধন চলছে। জীবন সায়াহ্নে আলহাজ্ব নুরুল হুদা চৌধুরী; পরিবারের দোয়া কামনা দেশের ১৬ কোটি মানুষকে অনলাইনে আনতে সরকার কাজ করছে : জয়! আখেরি মোনাজাতে অংশ নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী দ্বিতীয় দফার চুক্তিও মানতে নারাজ এসএটিভির এমডি সালাহউদ্দিন; কঠোর কর্মসূচির হুঁশিয়ারি ডিইউজে নেতাদের কক্সবাজারে ছিনতাইকারীর গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার ! রোহিঙ্গাদের পাশাপাশি স্থানীয়দের অধিকার নিশ্চিত করতে হবে : স্পিকার টেকনাফে পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে নারী মাদক কারবারি নিহত টেকনাফে ছাত্রলীগের ৭২তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত সারাদেশে ৫৯৫ জন আইজিপি পুরুস্কারের মধ্যে টেকনাফ থানায় পাচ্ছেন এএসআই সঞ্জিব !

নতুন বছর বরণে প্রবাল দ্বীপে পর্যটকদের ঢল

  • আপডেট টাইম মঙ্গলবার, ৩১ ডিসেম্বর, ২০১৯
  • ৮৩ নিউজটি পড়া হয়েছে

  মিজানুর রহমান মিজান 

প্রবাল দ্বীপ সেন্টমার্টিনে পর্যটকের আনাগোনা (ছবি : দৈনিক অধিকার)
নতুন বছররে বরণ করতে ৩১ ডিসেম্বরে প্রবাল দ্বীপে যেন পর্যটকের মেলায় পরিণত হয়েছে। হইচই, আনন্দ-উল্লাসে মেতে উঠেছে পর্যটকরা। এ থেকে বাদ যায়নি শিশু ও প্রবীণরাও। এদিকে দ্বীপে শতাধিকের বেশি হোটেল, মোটেল ও কটেজসহ কোথাও ঠাই নেই।

নতুন বছরকে ঘিরে দ্বীপে ৭ হাজারের মত পর্যটক সেখানে অবস্থানের খবর পাওয়া গেছে। এ আয়োজনকে ঘিরে পুলিশ, বিজিবি, কোস্ট ও স্থানীয় প্রশাসনের সার্বিক প্রস্তুতিও রয়েছে বলে প্রশাসন থেকে জানানো হয়।

জানা গেছে, ইংরেজি বর্ষ ২০১৯ সালকে বিদায় ও নতুন বর্ষ ২০২০ সালকে বরণ করতে দেশের একমাত্র প্রবালদ্বীপ সেন্টমার্টিন দ্বীপে হাজারো পর্যটকের আগমন ঘটছে। গত কয়েক দিন ধরে দেশি-বিদেশি পর্যটকের আগমন শুরু হয়েছে। আরও পর্যটক সেন্টমার্টিন দ্বীপে পৌঁছবে বলে আশা করছেন পর্যটন ব্যবসায়ীরা। এদিকে টেকনাফ-সেন্টমার্টিন নৌপথে চলাচলকারী ৮টি পর্যটক বাহি জাহাজের টিকেট অগ্রিম বুকিং রয়েছে।

আরও পড়ুন- বর্ষবরণে কক্সবাজারে পর্যটকদের উপচে পড়া ভিড়

সেন্টমাটিন হোটেল-মোটেল মালিক সমিতির সভাপতি মুজিবুর রহমান জানান, নতুন বছরকে স্বাগত জানাতে সেন্টমার্টিনে পর্যটকদের আগমন বৃদ্ধি পেয়েছে। হোটেল-মোটেল, কটেজ শতাধিক আবাসিক হোটেলের সব কক্ষ ইতোপূর্বে অগ্রিম বুকিং হয়ে গেছে।

সেন্টমার্টিন ইউনিয়র পরিষদের চেয়ারম্যান নুর আহমেদ বলেন, ‘সেন্টমার্টিন দ্বীপে বর্ষ বিদায়ে বিশেষ কোন আয়োজন নেই। তবে গত বছরের চেয়ে তুলনায় এবারে ‘থার্টি ফাস্ট নাইট উপলক্ষে দ্বীপে পর্যটকদের আগমনে বেড়েছে। তবে পর্যটকরা যাতে হয়রানির স্বীকার না হয়ে সে বিষয়ে নজরদারি রাখা হচ্ছে।’

এ ব্যাপারে সেন্টমার্টিন পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ফজলু আলম জানান, থার্টি ফাস্ট নাইট উপলক্ষে সেন্টমার্টিনে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে। অপ্রীতিকর ঘটনা এরাতে বিভিন্ন স্থানে পুলিশ মোতায়েন থাকবে তবে এদিন সন্ধ্যার পর থেকে সবধরনের অনুষ্ঠান বন্ধ থাকবে।

এ ব্যাপারে টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাইফুল ইসলাম জানান, ‘থার্টি ফাস্ট নাইট উপলক্ষে দ্বীপে পর্যটকদের আগমন বৃদ্ধি পেয়েছে। পর্যটকদের আগমন বৃদ্ধি পাওয়ায় সেন্টমার্টিনগামী জাহাজগুলোতে যেন অতিরিক্ত যাত্রী বহন করতে না পারে সে জন্য রাখা হয়েছে কঠোর নজরদারী। পাশাপাশি পর্যটকরা সেন্টমার্টিন দ্বীপ ভ্রমণের জন্য স্থানীয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে সার্বিক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..